আগ্নেয়গিরির জ্বালামুখ থেকে ধোঁয়া উদগীরণ অব্যাহত থাকায় বালি দ্বীপের নগুরাহ রাই ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট বন্ধ রাখার সময় আরো ২৪ ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে

17

মাউন্ট অ্যাগুঙ আগ্নেয়গিরির জ্বালামুখ থেকে ধোঁয়া উদগীরণ অব্যাহত থাকায় বালি দ্বীপের নগুরাহ রাই ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট বন্ধ রাখার সময় আরো ২৪ ঘণ্টা বাড়ানো হয়েছে। নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বুধবার সকাল ৭টা পর্যন্ত এয়ারপোর্ট বন্ধ থাকবে।

পরিস্থিতির উন্নতি না হলে বা আরো অবনতি হলে এ সময় আরো বাড়তে পারে। ইন্দোনেশিয়ার রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এয়ারপোর্ট অপারেটর পিটি আঙকাসা পুরা ১ এর যোগাযোগ ও আইনি সহায়তা বিভাগের প্রধান আরি আহসানুররহিম জানান, এয়ারপোর্টের উপরে ধোঁয়ার প্রভাব বিবেচনা করে জরুরি বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে।

এয়ারপোর্টের আকাশ এখনো আগ্নেয় ছাইয়ে আচ্ছাদিত হয়ে আছে। উদগীরণ পরিস্থিতি ও আবহাওয়া পর্যবেক্ষণ করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সর্বশেষ খবর অনুযায়ী, মাউন্ট অ্যাগুঙ থেকে উদগীরিত আগ্নেয় ছাই প্রায় ৩০ হাজার ফুট পর্যন্ত উপরে উঠছিলো। আর দক্ষিণ ও দক্ষিণ পশ্চিম দিক থেকে ৫ থেকে ১০ নট গতিতে বয়ে আসা বাতাসের গতিমুখ ছিলো এয়ারপোর্টের দিকেই। গত শনিবার নতুন করে মাউন্ট অ্যাগুঙ থেকে ধোঁয়া উদগীরণ শুরুর পর থেকেই বালি এয়ারপোর্টে ফ্লাইট ওঠানামা ব্যাহত হতে থাকে। জারি করা হয় রেড এলার্ট।

 

এয়ারলাইন্সগুলো তাদের ফ্লাইট বাতিল করতে থাকে।

সোমবার সকাল ৭টায় বালি এয়ারপোর্ট পুরোপুরি বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর ফলে ৪৪৫টি ফ্লাইট বাতিল হয়ে যায়। সোমবার পর্যন্ত আটকে পড়ে ৫৯ হাজার যাত্রী। পর্যটন দ্বীপ হিসেবে পরিচিত বালিতে বছরের সব সময়ই পর্য্টকদের ভিড় থাকে। দীর্ঘ দিন ঘুমিয়ে থাকা আগ্নেয়গি জেগে ওঠার পর সবার মধ্যে ভীতি ছড়িয়ে পড়েছে। ১৯৬৩ সালে এই আগ্নেয়গিরির অগ্নুৎপাতে ১ হাজার ৬০০ মানুষ প্রাণ হারিয়েছিলো।