বাবর আজমের হাফ-সেঞ্চুরি এবং সাব্বির রহমানের ৪৪ রানের ঝোড়ো ইনিংস

17

নড়বড়ে শুরু হলেও শেষটায় দারুণ লড়াকু স্কোর গড়ল সিলেট সিক্সার্স। সৌজন্যে বাবর আজমের হাফ-সেঞ্চুরি এবং সাব্বির রহমানের ৪৪ রানের ঝোড়ো ইনিংস।

শেষের দিকে হুইটলি-ব্রেসনানের ছোট দুটি ইনিংসে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৭৩ রান তুলেছে নাসির হোসেনের দল।

আজ মঙ্গলবার চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে দিনের প্রথম খেলায় টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমেই বিপদে পড়ে সিলেট সিক্সার্স। দলীয় ১৪ রানে প্রথম আঘাত হানেন নাজমুল ইসলাম। এলবিডাব্লিউ হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান (৫)। তিন নম্বরে নেমে নাজমুলকে এগিয়ে এসে মারতে গিয়েছিলেন অধিনায়ক নাসির। কিন্তু টাইমিং মিস করায় স্টাম্পড হওয়া থেকে বাঁচতে পারেননি। করেছেন মাত্র ৪ রান।

অপর ওপেনার আন্দ্রে ফ্লেচার হাত খুলে খেলছিলেন। তাকে সামিউল্লাহর তালুবন্দি করে নিজের তৃতীয় শিকার ধরেন নাজমুল।

এরপরই বাবর আজম আর সাব্বির রহমানের জুটিতে ঘুরে দাঁড়ায় সিলেট। ৩৪ বলে হাফ-সেঞ্চুরি করার পর ৫৪ রানে রান-আউট হয়ে যান বাবর। এই রান-আউটেও অবদান সেই নাজমুলের। এরপর মঞ্চে আবির্ভাব রংপুর অধিনায়ক মাশরাফির। তার অসাধারণ এক বলে বোকা বনে গিয়ে বোল্ড হয়ে যান ৩৭ বলে ৫ চারে ৪৪ রান করা সাব্বির।

১৯ তম ওভারের তৃতীয় বলে সাব্বির আউট হওয়ার পর হুইটলি ১১ বলে ১৭ এবং ব্রেসনান ৫ বলে ১৬ রানের দুটি অপরাজিত ইনিংস উপহার দেন। এতেই নির্ধারিত ২০ ওভারে সিলেটের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৫ উইকেটে ১৭৩ রান। রংপুর রাইডার্সের হয়ে ৪ ওভার বল করে ১৮ রানে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নিয়েছেন নাজমুল ইসলাম।