অভয়নগর থানা, উপজেলা শংকরপাশা গ্রামের আব্দুল রাজ্জাকের পৈত্রিক সম্পত্তি বসত ঘর ভাঙ্গার চেষ্টা এবং প্রান নাশের হুমকি 

9

অভয় নগর প্রতিনিধি :  পৈত্রিক ভিটায় তার বসত বাড়ি ভাঙ্গার এবং সন্ত্রাসী নিয়ে হুমকি দিচ্ছে বাশার অরূপে বাদশা, সে খুলনা রেলপুলিশে চাকুরি করে। প্রায় দিন একটাই বাড়ি এসে তার ভাই কুদ্দুস কে নিয়ে এবং সরদার মিল মশিয়াহাটী তার তার সন্ত্রাসী বাহিনী নিয়ে বিভিন্ন হুমকি দিয়ে আসছে এবং এলাকা উত্তেজিত করছে।

উল্লেখ্য সন্ত্রাসী বাদশা তার বাহীনি নিয়ে আক্রমন চালায়, এতে অনেক লোক আহত হয়। আমার স্ত্রী এবং আমার মেয়ে এবং আমার মেয়ে আহত হয়। তাদের নওয়াপাড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এ ভর্তি করা হয়। তার বোনের বাম পায়ে আঘাত আনে এবং বাম পা ভেঙ্গে যায়। এখনো পর্যন্ত সে হুমক হামকি দিয়ে আসছে। তার বসত ভিটার এস,এ খতিয়ানের ৪৮৭ নং এ ৩৮ এবং ৩৭ দাগ এবং হাল খতিয়ান নং- ৩৮, খতিয়ানের ৭২৪ দাগে ৫০ শতক জমির মধ্যে রাজ্জাকের ০৫ শতক জমি বসত বাড়ি এবং ১১ শতক জমি ইমামুলের নামে এল,এস,টি মামলা করি। চাচাতো ভাইদের রেকর্ড এ ভুল হলে আমরা মামলা করি। মামলা নং- ৯০৮/১৪, মামলার রায় আমাদের পক্ষে আসে। সেই খানে আমার বাস্তব বাড়ি ভাঙ্গার হুমকি দিয়ে আসছে বাদশা এবং তার ভাই কুদ্দুস ও তার বাহিনী, সে খুলনা রেল পুলিশের চাকুরী করে বলে পুলিশের ভয় দেখিয়ে তাকে প্রান নাশের ভয় দেখিয়ে আসছে। এই ঘর ভেঙ্গে দেওয়া হলে রাজ্জাকের পরিবারের রাস্তায় নামা ছাড়া আর কোন পথ নেই। এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তি ও সাধারণ লোকের কথা ওরা শোনে না। তাই সরকার, ও আইন বিভাগের কাছে ন্যায় বিচার পাওয়ার আশা করছে সাধারণ, শান্তিপ্রিয় লোক রাজ্জাকের পরিবার।