দিনাজপুরে আজ শুরু হয়েছে ৩ দিনের আঞ্চলিক ইজতেমা

15

সোনালী ডেস্ক :  দিনাজপুরে আজ ৩০ই নভেম্বর বৃহস্পতিবার দিনাজপুরের ঐতিহাসিক দেশের সর্ববৃহৎ গোর-এ শহীদ ময়দানে তিন দিনব্যাপী তাবলিগ জামায়াতের আঞ্চলিক ইজতেমা শুরু হয়েছে।

৩০ই নভেম্বর (বৃহস্পতিবার) জোহরে আম বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে ইজতেমার আনুষ্ঠানিকতা এবং ২ই ডিসেম্বর আখেরী মুনাজাতের মধ্য দিয়ে ৩ দিনের ইজতেমা শেষ হবে। দিনাজপুর জেলার ১৩ উপজেলা সহ দিনাজপুর জেলার পাশের জেলাদের তাবলীগ জামাতের সাথীদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আয়োজকরা জানান, তিন দিনব্যাপী ওই ইজমেতায় ৪ লক্ষাধিক ধর্মপ্রাণ মুসল্লির সমাগম ঘটবে। এবং সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণভাবে ইজতেমা সম্পন্ন করতে ইজতেমার চারদিকে ও দিনাজপুর শহর প্রশাসনের কঠোর নিরাপত্তায় চাদরের রয়েছেন।

দিনাজপুর জেলা ইজতেমা আয়োজক কমিটির প্রধান (জিম্মাদার) আলহাজ্ব রায়হানুল আমীন জানান, তিন দিনব্যাপী এই ইজতেমায় মুসল্লিদের কোন সম্যাসা না হয়, সে ব্যাপারে কঠোর নজর রাখা হচ্ছে, এবং তিনি আরও জানান পবিত্র কোরআন, হাদিস ও ইসলামের বিভিন্ন দিক নিয়ে বয়ান করবেন দেশের প্রখ্যাত আলেমরা।

উল্লেখ্য যে, ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের অজু-গোসলের পানি সরবরাহের জন্য ৩০টি টিউবওয়েল, একটি সাবমারসেবল পাম্প, ৩টি মটর স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া নিরাপদ স্যানিটেশনের জন্য ৪শ’ টয়লেট তৈরা করা হয়েছে। বিদেশী মেহনান ও তাবলীগ জামাতের বৃদ্ধ সাথীদের জন্য মাঠের পশ্চিম পাশে খাস কামরা (বিশেষ কক্ষ) তৈরী করা হয়েছে। এই খাস কামরায় আগত বিদেশী মেহমান ও তাবলীগ জামাতের বৃদ্ধ সাথীরা থাকবেন। ইজতেমায় প্যান্ডেল তৈরী, টয়লেট নির্মাণ, নিরাপদ পানি সরবরাহের জন্য টিউবওয়েল স্থাপন, বিদ্যুৎ সংযোগসহ অন্যান্য সব ধরনের খরচ তাবলীগ জামাতের সার্থীরা নিজ উদ্যোগে করছেন। কারো নিকট থেকে ধরনের সহযোগিতা নিচ্ছেন না। একমাত্র আল্লাহকে রাজি- খুশি ও সওয়াবের আশায় সবাই স্বেচ্ছায় এসব কাজ করেছেন।