আজকে দেশে-সমাজে-রাষ্ট্রে তারা জোর করে ক্ষমতা দখলে রাখতে চায় : মির্জা ফখরুল

12

সোনালী ডেস্ক : ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করার জেরে আন্দোলনকারীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছেলে আরাফাত রহমান কোকোর ৩য় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বুধবার দুপুরে রাজধানীর বনানী কবরস্থানে শ্রদ্ধা জানানোর পর দুঃস্থদের মাঝে খাবার বিতরণের আগে সাংবাদিকদের কাছে এ নিন্দা জানান তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যা ঘটেছে তা আওয়ামী লীগের চরিত্র। এটা ছাত্রলীগের নতুন কিছু ব্যাপার নয়। তারা বহুবার শিক্ষকদের মেরেছে, ছাত্রদের মেরেছে এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিক্টেটেরিয়াল যে অথরিটি আছে তারা যখন তাদের (ছাত্রলীগ) বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে, তখনই তারা (ছাত্রলীগ) হাতিয়ার নিয়ে গণতন্ত্রকামী মানুষের ওপর আক্রমণ করেছে।

তিনি বলেন, আজকে দেশে-সমাজে-রাষ্ট্রে তারা জোর করে ক্ষমতা দখলে রাখতে চায়। কিন্তু তারা তা পারবে না। এর অবসান হবেই। এ দেশের মানুষ নিঃসন্দেহে তাদের পরাজিত করবে।

ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়া সংগঠকবৃন্দ ব্যানারে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, আবদুস সালাম, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, সাংগঠনিক সম্পাদক শামা ওবায়েদ, চেয়ারপারসনের প্রেস উইংয়ের সদস্য শায়রুল কবির খান প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

মির্জা ফখরুল অভিযোগ করে বলেন, ক্ষমতাসীন সরকার আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন যাতে না হয় সেই চেষ্টা করছে। সরকার জানে সত্যিকার অর্থে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন হলে তারা কখনই নির্বাচিত হয়ে আসতে পারবে না।

তিনি বলেন, সেজন্য সংবিধানে তত্বাবধায়ক সরকারের যে বিধান ছিল, আওয়ামী লীগের দাবিতে যে তত্বাবধায়ক ব্যবস্থা নিয়ে এসেছিলাম, তা বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। তারা দলীয় সরকারের অধীনে জোর করে নির্বাচন করার পাঁয়তারা করছে। এর জন্য তারা বিভিন্ন অজুহাত সৃষ্টি করছে।