এই মুহূর্তে মাহির হাতে রয়েছে ছয়টি ছবি

33

 বাংলাদেশের প্রথম পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার ছবি ‘ঢাকা অ্যাটাক’ এই এক ছবি দিয়েই ২০১৭ সালটা ইতিমধ্যে নিজের দখলে নিয়েছেন হালের সবচেয়ে জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি

সোনালী ডেস্ক:  বাংলাদেশের প্রথম পুলিশ অ্যাকশন থ্রিলার ছবি ‘ঢাকা অ্যাটাক’। এই এক ছবি দিয়েই ২০১৭ সালটা ইতিমধ্যে নিজের দখলে নিয়েছেন হালের সবচেয়ে জনপ্রিয় নায়িকা মাহিয়া মাহি। ২০১৮ সালটাও বোধহয় এই নায়িকার দখলেই থাকবে। তার চুক্তিবদ্ধ ছবির সংখ্যা ও শুটিংয়ের সিডিউল অন্তত তেমনটাই আভাস দিচ্ছে।

এই মুহূর্তে মাহির হাতে রয়েছে ছয়টি ছবি। ছবিগুলো হচ্ছে, ‘জান্নাত’, ‘পলকে পলকে তোমাকে চাই’, ‘পবিত্র ভালোবাসা’, ‘মন দেবো মন নেবো’, ‘আমার মা আমার বেহেশত’ ও ‘অবতার’। এর মধ্যে ‘জান্নাত’, ‘পলকে পলকে তোমাকে চাই’, ‘পবিত্র ভালোবাসা’ ও ‘মন দেবো মন নেবো’ ছবিগুলোর শুটিং শেষ। নতুন বছরের শুরু থেকেই বিরতি দিয়ে দিয়ে মুক্তি পাবে ছবিগুলো।

‘জান্নাত’ ছবিতে মাহির নায়ক সায়মন সাদিক। এটি পরিচালনা করছেন মোস্তাফিজুর রহমান মানিক। এখন ছবিটির পোস্ট প্রোডাকশনের কাজ চলছে। অন্যদিকে শুরু হয়েছে ‘আমার মা আমার বেহেশত’ ছবির শুটিং। এটিতেও মাহির নায়ক সায়মন। এ ছবির পরিচালনার চেয়ারে আছেন বদিউল আলম খোকন। কাহিনি ও সংলাপ লিখেছেন ছটকু আহমেদ। এতে মায়ের ভূমিকায় অভিনয় করছেন চিত্রনায়িকা সূচরিতা। তাকে ঘিরেই ছবির গল্প আবর্তিত হয়েছে।

তবে মাহি বর্তমানে ব্যস্ত ‘অবতার’ ছবির শুটিং নিয়ে। ছবিটির শুটিং হচ্ছে পাবনায়। হাসান শিকদার পরিচালিত এ ছবিতে একজন মেডিকেল ছাত্রীর চরিত্রে অভিনয় করছেন মাহি। ছাত্রী হলেও গল্পের একটা পর্যায়ে খুনের প্রতিশোধ নিতে মরিয়া হয়ে ওঠবেন তিনি।  ‘অবতার’ এ মাহির নায়ক হিসেবে রয়েছেন  নবাগত রম্নশো।

 

২০১২ সালে ‘ভালোবাসার রঙ’ ছবির মাধ্যমে চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে দুষ্টু-মিষ্টি মাহিয়া মাহির। প্রথম বছরটা যেনতেন গেলেও পরের বছরই মাহির পর পর তিনটি ছবি হিট হয়। যার কারণে সে বছরই নাম্বার ওয়ান নায়িকার তকমা লাগে তার গায়ে। অভিনয় দক্ষতা দিয়ে মাত্র পাঁচ বছরের ক্যারিয়ারেই মাহি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত অভিনেত্রী হিসেবে নিজেকে তুলে ধরেছেন।